বিএনপিতে মুক্তিযোদ্ধারা কোণঠাসা হয়ে আছে: মেজর হাফিজ

বিএনপিতে মুক্তিযোদ্ধারা কোণঠাসা হয়ে আছে: মেজর হাফিজ

গত দেড় দুই বছর ধরে বিজয় দিবস, স্বাধীনতা দিবস, শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে আমাকে  আমন্ত্রণ জানানো হয় না। তবে আগে সবসময় আমন্ত্রণ জানানো হতো।

আজ শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) কারণ দর্শানোর নোটিশের (শোকজ) জাবাবে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, বিএনপিতে যোগদানের আগে আমি তিনবার সংসদ সদস্য ছিলাম। ১৯৯১ সালে স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়ে বিএনপিতে যোগ দিয়েছিলাম। আমি গত ২২ বছর ধরে দলের অন্যতম ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছি।

তিনি আরও বলেন, বিএনপিতে মুক্তিযোদ্ধাদের কোণঠাসা করে রাখতে একটি মহল সক্রিয় রয়েছে। আমি মুক্তিযোদ্ধা, জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছি। মেজর জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে আমরা সিলেট দখল করেছি। ১৯৭৭ সালে গণভবনে আমাকে ডেকে জিয়া বলেছেন তুমি নির্বাচন করো, তখন আমি বলেছি আমি এখন রাজনীতি করবো না।আমি এলাকার জন্য কাজ করি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করেছি। আমি ২৯ বছর ধরে এই দল করি। আমি কখনও বিএনপির বিরুদ্ধে কথা বলি নাই। এমন কি শেখ হাসিনার বিরুদ্ধেও কখনও খারাপ মন্তব্য করি না কারণ এসব আমার আচরণে নেই।

উল্লেখ্য গত সোমবার দলের দুই ভাইস চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও শওকত মাহমুদের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ এনে কারণ দর্শানোর নোটিস (শোকজ) দিয়েছিল বিএনপি।  ওই নোটিশে সই করেন দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Design & Develop BY Our BD It